বিশেষ বিবাহ (Special Marriage) কাকে বলে?

মুসলিম শাহরুখ খানের হিন্দু স্ত্রী

 

বিশেষ বিবাহ (Special Marriage) কাকে বলে?

বিশেষ বিবাহ হল এমন বিবাহ যেখানে ধর্মীয় পরিচয় ব্যতিরেকে যাবতীয় কার্যাবলী যথাযথ ভাবে পালন করা হয়।এ ধরনের বিয়ের ক্ষেত্রে "বিশেষ বিবাহ আইন ১৮৭২" অনুসরণ করা হয়।

কথায় আছে- প্রেম মানেনা ধর্ম আর চোর শুনেনা ধর্মের কাহিনী। বর্তমান যুগে এমন অনেক মানুষ আছেন যারা প্রেম ঘটিত বা ব্যক্তিগত কারণে ধর্ম ত্যাগ করে হলেও প্রিয় মানুষটিকে স্বামী বা স্ত্রী হিসেবে পেতে চান। এমন অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতিতে দুজন স্বাধীন মানুষকে বৈধভাবে একসাথে বসবাস করার অনুমতি দেয়ার জন্যেই বিশেষ বিবাহ আইন, ১৮৭২ প্রণীত হয়।

কারা বিশেষ বিবাহ করতে পারবে?

১. যারা কোনো ধর্মের অনুসারী নয়।

২. ভিন্ন ধর্মের দু’জন ব্যক্তি যারা ধর্ম ত্যাগের ঘোষণা দিয়েছে।

৩. আইনে উল্লেখিত আট ধর্ম ছাড়া অন্য যে কোনো ধর্মের ব্যক্তিরা ধর্ম ত্যগ না করেই এই বিয়ের সুবিধা নিতে পারে। যেমনঃ ব্রাহ্মরা।

৪. হিন্দু ধর্মের ভিন্ন বর্ণের দুইজন ব্যক্তি ধর্ম ত্যাগ না করেই বিশেষ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে পারে।

৫. ভিন্ন ধর্মের দুইজন ব্যক্তি যদি তারা হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন এই চার ধর্মের যেকোনো দুটির অনুসারী হয়, তবে ধর্ম ত্যাগের ঘোষণা ছাড়াই তারা Special Marriage করতে পারে।

বিশেষ বিবাহ করার নিয়ম :

১. রেজিস্ট্রার: বিশেষ বিবাহ আইনে বিয়ের জন্য সরকার কর্তৃক নিযুক্ত রেজিস্ট্রার রয়েছে।

২. নোটিশ: বিয়ের দুই পক্ষের মধ্যে যে কোনো একটি পক্ষ রেজিস্ট্রারের কাছে ১৪ দিন আগে বিয়ের নোটিশ পাঠাবে। যদি না এই সময়ের মধ্যে কেউ আপত্তি করে থাকে তবেই বিয়ে সম্পন্ন করা যাবে।

৩. এই আইনের অধীনে বিয়ে করাও একটি দেওয়ানী চুক্তি হিসেবে বিবেচ্য, সুতরাং দু'পক্ষের সম্মতি অত্যন্ত জরুরী।

৪. বিয়ের দুই পক্ষ, রেজিস্ট্রার এবং  তিনজন সাক্ষীর সামনে " আমি ‘ক’ কে আইনত স্ত্রী/ স্বামী হিসেবে গ্রহণ করছি " - মর্মে ঘোষণা দিবে।
উল্লেখ্য, এ ক্ষেত্রে মহিলা সাক্ষী কিংবা দুইজন মহিলা মিলে একজন পুরুষের সমান - এমন সাক্ষী গ্রহণযোগ্য হবে না।

বিশেষ বিবাহ বিচ্ছেদ হয় কিভাবে?

বিশেষ বিবাহ বা Special Marriage আইনের অধীনে কেউ বিয়ে করলে, ঐ বিয়ে যদি তারা কখনো বিচ্ছেদ করতে চান তবে ১৮৬৯ সালের ডিভোর্স আইন দ্বারা বিয়ে বিচ্ছেদ সম্পাদন সম্পাদন করতে পারবেন।

আজকের আর্টিকেলটি ( বিশেষ বিবাহ (Special Marriage) কাকে বলে? )  পছন্দ হলে শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দেয়ার অনুরোধ রইলো। আর যদি আপনাদের মনে আরও কোনো প্রশ্ন থাকে, তবে তা নিচে কমেন্ট করেও জানাতে পারেন।

যে কোন আইনী পরামর্শের জন্যে যোগাযোগ করতে ইমেইল করুন -
Email: info.shuhag@gmail.com
অথবা,
কন্টাক্ট বক্সে মেসেজ করতে পারেন।

নবীনতর পূর্বতন