বিজয় দিবেসের আগে ইউক্রেনে রুশ সেনাবাহিনীর পরাজয়

খারকিভে ইউক্রেনের পতাকা (ছবিঃ ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস)

বিজয় দিবসের আগেই ইউক্রেনে আরও একটা ব্যর্থ দিন দেখল রাশিয়া। ইউক্রেনীয় সেনার প্রতিরোধের মুখে রুশ সেনাবাহিনী পিছিয়ে আসলে খারকিভ দখল করে নিয়েছে ইউক্রেন। উত্তর-পূর্ব সীমান্তের দিকে পিছু হঠতে বাধ্য হয়েছে রাশিয়ার যুদ্ধবাজ সেনাদল। ইউক্রেন দাবি করেছে, "যাওয়ার আগে ইউক্রেনীয় সেনাদের হাত থেকে বাঁচতে বাধ্য হয়ে একটি সেতু উড়িয়ে দিয়েছে রুশ সেনা"।

আজ সোমবার (৯'ই মে,২০২২) জার্মানির বিজয় দিবস। এই বিশেষ দিনে মাত্র ৪৮ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে রাশিয়ান সেনার পিছু হঠার ঘটনায় রীতিমতো চিন্তিত রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও মস্কো। কারণ যে সবার জানা, খারকিভ হচ্ছে ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর।

রাশিয়া দাবি করেছিলো যে, পূর্ব ইউক্রেনের প্রায় ৫০০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যুদ্ধক্ষেত্রের ছবিটা রীতিমতো জটিল। এর কিছু অংশ রাশিয়ান সেনা আর কিছু অংশ ইউক্রেনের সেনাবাহিনী দখল করে রেখেছে। কিন্তু, যে অংশের কথা রাশিয়া এতো দিন ধরে বলে আসছিলো সেই ভূখন্ড থেকেই তাদের সেনাদের বিতাড়িত করা হয়েছে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই রাশিয়ার সেনাবাহিনী পূর্ব ইউক্রেনে এগোনোর চেষ্টা করে আসছিলো এবং বিজয় দিবস কাছে নিকটে চলে আসায় জয়ের জন্য বাড়তি চাপ বেড়েছে রুশ সেনার ওপর। এমন পরিস্থিতিতে বিশেষ কিছু সুবিধা করে উঠতে পারেনি না রুশ সেনা। বরং বিজয় দিবসের ঠিক আগের দিন তাদের পিছু হঠতে হয়েছে। 

বর্তমানে রুশ সেনাবাহিনীর সাথে পাল্লা দিতে ইউক্রেনীয় সেনারা রীতিমতো তৈরি। ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর হাতে রয়েছে ইউরোপের প্রথম সারির শক্তিশালী দেশ এবং আমেরিকার তৈরি উন্নত সামরিক অস্ত্রশস্ত্র, যেগুলো গত কয়েক দিন ধরে ক্রমাগত ইউক্রেন সেনাবাহিনীর হাতে লাগাতার এসে পৌঁছেছে।

জানা যায়, খারকিভের উত্তর-পূর্বে প্রায় ১২ মাইল দূরে তিনটি সেতু উড়িয়ে দিয়েছে রুশ সেনাবাহিনী, যাতে ওই সেতুগুলো দিয়ে ইউক্রেনের সেনা তাদের পিছু ধাওয়া করতে না-পারে। তবে, এই জয়েও বিশেষ আহ্লাদিত হচ্ছেনা ইউক্রেনের সেনা। তারা মনে করছে, ব্রিজের ওপারে আবারো রাশিয়া তাদের সেনা জড়ো করবে। তারপর সেনার সংখ্যা বাড়লে তারা আবারো ইউক্রেনের দিকে হামলা চালাতে পারে বলে আশংকা করছে। 

উল্ল্যেখ্য, খারকিভই ছাড়াও গত মাসেই ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের উত্তরাঞ্চল থেকে পিছিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছিলো রুশ সেনাবাহিনী, একই সাথে চেরনিহিভ থেকেও পালিয়ে গিয়েছিলো তারা।

নবীনতর পূর্বতন