সুনামগঞ্জে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে দেবরের হাতে এক মায়ের মৃত্যু

জামালগঞ্জে হত্যা

 সিলেট ইন্ডিপেন্ডেন্ট ডেস্কঃ সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার ভীমখালি ইউনিয়নের চাঁনবাড়ি গ্রামে পারিবারিক সম্পত্তির জের ধরে এক নারী নিহত। নিহতের নাম সুলেখা বেগম।

নিহত সুলেখা বেগমের স্বামী আকমল হোসেন মারফত জানা যায়, বাড়ির পাশের কিছু জমি নিয়ে বেশ কিছু দিন যাবৎ তার ভাই একরামুল হকে সাথে বিরোধ চলে আসছিলো। গত সোমবার সকাল বেলায় ঐ জমিতে ধান শুকানোর সময় একরামুল হকের সাথে বিবাদ লাগলে ঘটনার একপর্যায়ে একরামুল হক তার ভাই আকমল হোসেনকে মারতে এলে সুলেখা বেগম এগিয়ে গিয়ে বাঁধা দেন। এ সময় সুলেখা বেগমের বড় ছেলে সাইদুল হক এগিয়ে আসলে একরামুল হাসান ভাতিজা সাইদুলকে উদ্দেশ্য করে দা দিয়ে কোঁপ মারেন। কিন্তু সুলেখা বেগম তৎক্ষনাৎ ছেলেকে সড়িয়ে দিলে কোঁপটি নিজের মাথায় লাগলে তিনি গুরুতর ভাবে আহত হোন।

আহত অবস্থায় সুলেখা বেগমকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাঁকে সিলেট এম এ জি উসমানী হাসপাতালে রেফার করেন। তারপর সেখানে আজ শুক্রবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। 

এ ব্যাপারে জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি মীর মোহাম্মদ আব্দুল নাসের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান যে, এখনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। তবে মামলা দায়েরের পরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

নবীনতর পূর্বতন