সিলেট টুকের বাজারের তেমুখী পয়েন্টকে 'মুহিত চত্বর' করার দাবি

 

আবুল মাল আব্দুল মুহিত

বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী ও সিলেট-১ আাসনের সংসদসদস্য আবুল মাল আবদুল মুহিত স্মরণে সিলেট সদরবাসীর উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় টুকেরবাজার জাঙ্গাইলস্হ একটি কমিউনিটি সেন্টারে সিলেট সদরবাসীর উদ্যোগে এ দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক এর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিল পুর্ব আলোচনায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খাঁন। সভায় বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী ও সিলেট-১ আসনের সংসদসদস্য, সিলেট তথা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের সফল কাণ্ডারি মরহুম আবুল মাল আবদুল মুহিত এর অবদান ও স্মৃতির প্রতি সম্মান জানিয়ে সিলেট সদরের টুকেরবাজার এলাকায় তেমুখি পয়েন্টকে আবুল মাল আবদুল মুহিত এর নামে ” এ এম এ মুহিত চত্বর” ঘোষনা’র দাবি জানিয়েছেন সিলেট সদরের সর্বস্হরের জনগন। 

এবিষয়ে তারা সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করে অবিলম্বে তাহা বাস্তবায়নের দাবি জানান। সভায় এ এম এ মুহিতের কর্মময় জীবনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তারা বলেন,আবুল মাল মুহিত ২০০১ সালে সরাসরি রাজনীতিতে আসার পর দুর্দিনে সুদিনে সর্বত্রে তাঁর সরব উপস্হিতি ছিল প্রশংসনীয়। তিনি একজন কর্মী বান্ধব, জনবান্ধব ও সর্বজন শ্রদ্ধেয় নেতা ছিলেন। টানা ১০ বছরে তাঁর মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে সমগ্র বাংলাদশের বৈপ্লবিক উন্নয়ন তরান্বিত করার পাশাপাশি তাঁর সুযোগ্য নেতৃত্বে সিলেট সদরে ঐতিহাসিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে তিনি সর্বত্রে আলোকিত করেছেন। এছাড়াও তিনি সারাটি জীবন দেশপ্রেমকে বুকে ধারন করে দেশ ও মানুষের কল্যাণে নিজেকে নিবেদন করে গেছেন। তাঁর অবদান দলমত নির্বিশেষে সিলেট সদরবাসী কৃতজ্ঞচিত্তে আজীবন স্মরণ রাখবে বলে তারা মন্তব্য করেন।

এ সময় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় অংশ নেন বিশিষ্ট আইনজীবী এডভোকেট নুরে আলম সিরাজী,দোয়া ও মিলাদ মাহফিল পরিচালনা করেন আহলে সুন্নতওয়াল জামাত এর কেন্দ্রীয় সংসদের যুগ্ম মহা সচিব অধ্যক্ষ মাওলানা জালাল উদ্দিন আল কাদরি। এতে মহান আল্লাহর কাছে মরহুমের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এ সময় বিশিষ্টজনের মধ্যে উপস্হিত ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ শমসের জামাল,উপ দপ্তর সম্পাদক মজির উদ্দিন, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য মোহাম্মদ শাহানুর,বিশিষ্ট সাংবাদিক মকসুদ আহমদ মকসুদ,মোগলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ হিরন মিয়া, কান্দিগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল মনাফ, জালালাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওবায়দুল্লাহ ইসহাক,সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আমির উদ্দিন আহমদ, সাবেক অর্থ সম্পাদক হাজী সাজ্জাদ মিয়া, সদর উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ও কান্দিগাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, বিশিষ্ট মুরব্বি হাজী মইন মিয়া, টুকেরবাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী নেওয়াজ উদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য সাহাব উদ্দিন লাল, মাস্টার আব্দুল করিম, বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন, সাবেক মেম্বার নুরুল ইসলাম,বিশিষ্ট মুরব্বি আসাব উদ্দিন, সাবেক মেম্বার আকবর আলী,সাবেক মেম্বার বাবুল মিয়া, প্রবাসী সামসুল ইসলাম হাবিবি, মুরব্বি আমজদ আলী, কাচা মিয়া মেম্বার, মইন মেম্বার, শরীফ আলী মেম্বার, দুদু মিয়া মেম্বার, জামাল আহমদ মেম্বার, আলম মেম্বার, কান্দিগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদ আলী,সিলেট সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এম উস্তার আলী,সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃ আলী হোসেন সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক,পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও সমাজের গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্হিত ছিলেন। 

উল্লেখ্য, আবুল মাল আবদুল মুহিত গত ২৯ এপ্রিল দিবাগত রাত ১২টা ৫৬ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে বর্ষীয়ান এ রাজনীতিকের বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর। বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ এ এম এ মুহিত ছিলেন একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি একাধারে লেখক, কূটনীতিক ও গবেষক হিসেবেও পরিচিত ছিলেন।

নবীনতর পূর্বতন