ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন করতে চায় দুবাই : চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান

ভারত বনাম পাকিস্তান

দুবাই ক্রিকেটের চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজের আয়োজক হতে চান।

কয়েকদিন আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দুর্দান্ত ম্যাচ খেলে বিরাট কোহলির ভারতকে দশ উইকেটে উড়িয়ে দিয়েছিল পাকিস্তান। সেই লজ্জাজনক পরাজয় সামলে ওঠার আগেই চলে আসে নিউজিল্যান্ড ম্যাচ। সেই ম্যাচেও হার। গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয় ভারত। কোটি কোটি জনগণের হৃদয় ভেঙে যায়।

এমন পরিস্থিতির পর ভারত-পাকিস্তান সিরিজ হতে পারে এমন সম্ভাবনা পুরোপুরি না হলেও হাওয়ায় ভাসছিল। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং শোয়েব আখতারের আলোচনা, রামিজ রাজার সঙ্গে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট এবং সচিব জয় শাহের কথাবার্তা সেই ব্যাপারেই কিছুটা ইঙ্গিত দিচ্ছিল। দ্বিপাক্ষিক যদি বা সম্ভব না হয়, ত্রিদেশীয় সিরিজ হতে পারে বলে আলোচনা চলছিল।
বিশ্ব ক্রিকেটের দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ ভারত ও পাকিস্তান। দুই দলের খেলায় থাকে টান টান উত্তেজনা। কিন্তু রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে দুই দেশের ক্রিকেট দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজও বন্ধ প্রায় আট বছর ধরে। যা খুব দ্রুতই হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। তবে ভারত বা পাকিস্তানের বদলে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এ দুই দলের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন করা যায় কি না, সে ব্যাপারে আলোচনা-গুঞ্জন শোনা যায় প্রায়ই।

এবার সেই আলোচনার পালে হাওয়া দিলেন দুবাই ক্রিকেট কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান ফালাকনাজ। সফলভাবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের বাকি অংশ এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পুরো আসর আয়োজন করার পর, এবার ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজের স্বাগতিক হতে চান দুবাই ক্রিকেটের চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে আব্দুর রহমান বলেছেন, "এখানে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ আয়োজন করা গেলে দারুণ হবে। অনেক আগে যখন শারজায় ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হতো, মনে হতো যেন যুদ্ধ চলছে। তবে এটা ভালো যুদ্ধ, স্পোর্টিং একটি যুদ্ধ। যা অসাধারণ ছিল। তিনি আরও বলেন, আমার মনে আছে, একবার রাজ কাপুর (ভারতের অভিনেতা) তার পরিবার নিয়ে এখানে এসে বলেছিলেন, শারজায় ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হওয়া কী দুর্দান্ত। ক্রিকেট মানুষকে কাছে আনে। ক্রিকেটই আমাদের এক করেছে এবং এভাবেই থাকতে দিন। তো, আমরা এটিই করতে চাই।"

এসময় অন্তত দু বছরে একবার ভারত-পাকিস্তান সিরিজ আয়োজনের ইচ্ছাপ্রকাশ করে তিনি বলেন, আমরাও এটি করতে চাই। আমরা যদি ভারতকে বছরে বা দুই বছরে একবার এখানে এসে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলতে রাজি করতে পারি, তা দারুণ হবে। সর্বশেষ ২০১২-২০১৩ সিজনে  দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলেছে ভারত ও পাকিস্তান। তখন ভারতের মাটিতে হয়েছিল তিনটি করে ওয়ানডে ও পুরো টুর্নামেন্ট।

এরপর থেকেই দুই দল মুখোমুখি হয় শুধুমাত্র আইসিসি ইভেন্টে। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় অবশ্য আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন যে, দুই দেশের সিরিজ চালু হবে কিনা সেটা নির্ভর করছে ভারত এবং পাকিস্তানের সরকারের ওপর। সেই সবুজ সঙ্কেত না পেলে পিসিবি বা বিসিসিআই এর পক্ষে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়।


নবীনতর পূর্বতন