তাহিরপুরে সাংবাদিক নির্যাতন মামলায় দুই জন গ্রেফতার

 


সংবাদ প্রকাশের জের ধরে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রবীণ সাংবাদিক রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখের ওপর পরিকল্পিত ভাবে হামলা ও নির্যাতনের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুই জনকে গ্রেপ্তার করেছে তাহিরপুর থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে- উপজেলা সদরের উজান তাহিরপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে জোসেফ মিয়া ও উপজেলা যুবলীগ নেতা হাফিজ উদ্দিনের ছোট ভাই রাকাব উদ্দিন।

সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও তাহিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম হাক্কানী দুজনকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি শুক্রবার সকালে নিশ্চিত করে জানান, গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানো হবে।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় তাহিরপুর সদর বাজারে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক হাফিজ উদ্দিন ও তার ভাতিজা আবুল বাশারসহ একদল দুর্বৃত্ত পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে সাংবাদিক রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখকে আহত করে। এ ঘটনায় সাংবাদিক রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখ সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এরপর বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) রাত ৮ টায় ১৬ জনকে অভিযুক্ত করে রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখ তাহিরপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনার পর (২২ ফেব্রুয়ারি) তাহিরপুর সদর বাজারে উপজেলা প্রেসক্লাব ও নাগরিক সমাজের ব্যানারে মানববন্ধন হয়। এ মানববন্ধনকে কেন্দ্র করে তাহিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক তানসেন তালুকদার তুষারের ওপরও পরিকল্পিত হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। হামলার ঘটনায় উপজেলা যুবলীগ আহ্বায়ক হাফিজ উদ্দিনসহ ১২ জনকে অভিযুক্ত করে ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানসেন তালুকদার তুষার বাদী হয়ে তাহিরপুর থানায় পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করেন।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ তরফদার মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তারা যত বড় শক্তিশালী হউক, কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। বাকীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।


নবীনতর পূর্বতন